19-Wed-Dec-2018 02:29pm

Position  1
notNot Done

মাসুদ অর্ণব-এর একগুচ্ছ কবিতা

Zakir Hossain

2018-04-3 00:20:31

ধর্ষণমুখি দর্শনে বিভোর
বিবেকের ঈশ্বর নাক ডেকে ঘুমালে
বেড়ে যায় মানুষের মুখোশে পশুদের বিচরণ।
আবেগের বৃষ্টিতে ভিজে আর জীবনের খরায় পুড়ে
চিন্তার নদীতে শিখেছি সামান্য সাঁতার; শিল্পের ভাষা
বকার চেয়ে অনুজ্জ্বল হলে- দর্শনের শরীরে জেগে ওঠে
ধর্ষণচিহ্ন। চাওয়া-পাওয়ার স্বচ্ছতা হারিয়ে আমরা আজ
ধর্ষণমুখি দর্শনে বিভোর; জনজীবনে নামে রাতের রঙে ভোর।
ঘুমন্ত জাতিরও ভাঙে ঘুম; আমাদের এখন দীর্ঘঘুমের মৌসুম।

শূন্যতার ভাষা
সম্পর্কের ভাঁজে লুকানো বিশ্বাস ফণা তোললে
বিশ্বাসের সমুদ্রে ওঠতেই পারে দীর্ঘশ্বাসের ঢেউ।
স্বপ্ন দেখতে দেখতে ক্লান্ত হলেও
স্বপ্নবিমুখ হতে নেই ; স্বপ্নবিমুখ মানুষ অর্ধমৃত।
ভাঙা-গড়ায় গড়াগড়ি খাওয়া জীবননদীতে ভাসমান
খড়কুটোতেও থাকতে পারে একটি স্বাস্থ্যবান স্বপ্নের উপাদান।

অনন্ত দেয়ালের আরেক নাম
হাতে পারে জীবন; শূন্যতার ভাষা জানা ছাড়া
প্রজাপতির রঙে রঙিন হয় না ফ্যাকাসে জীবনের ঘুড়ি।

মানবতার খরায় চৌচির
চারদিকে চতুর আলোর ছড়াছড়ি;
কাকদের অসুস্থ্য চর্চায় আমাদের স্বপ্নের ভূমি
মানবতার খরায় চৌচির। গণস্রোত থেমে গেছে;
থেমে গেছে গণঢেউ। ক্ষমতাসীন কাকেরা নিজেদের পথ
কাঁটামুক্ত রাখতে নগ্ন কাটা-ছেড়ায় সর্বদা ব্যস্ত;
মহামান্য অন্ধপতি হিসেবে একজন থাকেন ন্যস্ত।
বিরোধী কাকদের ধর্মই বিরোধিতা, হোক সেটা
গণতিতা। উভয়ের অপকৌশলে বেজে ওঠে
অন্ধকারের বাদ্য; একদিন গণস্রোতে গণঢেউ ওঠতে বাধ্য।
আমাদের প্রতীক্ষিত দিন- কাকের স্থানে কোকিল
আর মেঘে ঢাকা আকাশ হবে নীল।

অনুর্বর সময়ের শস্য
লাল বললেই বুঝি বাংলার মাটি
কালো বললেই বুঝি বাংলার আকাশ।
খরার ক্ষিপ্রতা কিংবা অতিবৃষ্টির উত্তেজনা
দাঁতাল  রোদের দুপুর কিংবা তাগড়া অন্ধকার
সবকিছুই আমাদের অনুর্বর সময়ের শস্য।
আমরা যেন মহাসমুদ্রে দিকভ্রান্ত নাবিক;
স্বপ্নহীন সন্ধ্যায় চড়ে শিশু-সূর্যের হাসিতেও
আমাদের চোখের ক্যানভাসে রুগ্নস্বপ্ন।

সময়ের নিজস্ব কোনো রঙ নেই
আমরাই সময়কে রাঙাতে পারি বোধের রঙে।


ফেরিওয়ালা
[কবি হেলাল হাফিজের ফেরিওয়ালা কবিতা অনুকরণে]

অন্ধকার নেবে অন্ধকার, হরেক রকম অন্ধকার আছে
ধর্মান্ধতার  টেকসই অন্ধকার, নীতিহীন রাজনীতির
চর্চিত অন্ধকার; হিং¯্রতার পাশবিক অন্ধকার
পুকুর, নদী ও সাগর চুরির তাজা অন্ধকারও আছে।

অন্ধকার নেবে অন্ধকার
মন নিয়ে খেলার জন্য শৈল্পিক অন্ধকার
লোক দেখানো বন্ধুত্বের চটুল অন্ধকার
সাধক সেজে ঘুরে বেড়াবার জন্য সুরভিত অন্ধকারও আছে।

অন্ধকার নেবে অন্ধকার
তৃতীয় চোখের অন্ধকার, অন্ধগলির অন্ধকার, দুর্বৃত্তায়নের
দুরন্ত অন্ধকার; নব্য রাজাকার হয়ে ওঠার জন্য
পৈত্রিক অন্ধকারও আছে।

অন্ধকার নেবে অন্ধকার
সাম্প্রদায়িকতার শিক্ষিত-অশিক্ষিত অন্ধকার
উগ্র প্রতিক্রিয়াশীলতার শাণিত অন্ধকার; প্রকাশ্য দিবালোকে
ধর্ষিত হতে দেখে ঘুমিয়ে থাকার অন্ধকারও আছে।

অন্ধকার নেবে অন্ধকার, হরেক রকম অন্ধকার আছে ....