20-Sat-Jul-2019 10:13am

Position  1
notNot Done

সংলাপের আহ্বান বিএনপির এমপি হারুনের

গনি আল-মারুফ

2019-06-16 20:38:52

দ্য পলিটিক্স রিপোর্ট:সংসদের বৈধতা নিয়ে আবারো প্রশ্ন তুলে বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেছেন, আমাদের ৬ জনের আসার মধ্য দিয়ে এই সংসদের বৈধতা দেয়া হয় না। আমাদের সংসদে প্রবেশের অন্যতম কারণ সাংবিধানিক গণতান্ত্রিক স্পেসগুলো অনুপস্থিত। তাই সংসদে এসে কথা বলছি। আমি সংসদ নেতাকে আহ্বান জানাচ্ছি, আশা করছি দেশে সুশাসন ফিরে আনার জন্য সংসদ নেতা প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। তিনি জাতীয় নেতৃবৃন্দকে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে দেশে একটি আবহাওয়া তৈরি করবেন সুবাতাস বয়ে আনবেন।
রোববার বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে ২০১৮-১৯ অর্থবৎসরের সম্পূরক বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এরআগে বিকেল ৩ টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হয়।বক্তৃতার শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকান্ডকে জাতীয় ট্রাজেডি আখ্যায়িত করে বিএনপি’র এই দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেন, সংসদ নেতা আপনি ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট পরিবারের সদস্যদের হারিয়েছেন। এটা নিঃসন্দেহে বেদনার। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড দেশের রাজনীতির ইতিহাসে জাতীয় ট্রাজেডি। আর ইন্ডিমনিটি অধ্যাদেশ বিএনপি দেয়নি। দিয়েছে আওয়ামী লীগের একটি অংশ। খন্দকার মোশতাক ক্ষমতায় থাকাকালে ইন্ডিমনিটি অধ্যাদেশ জারি করে।
বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান সম্পর্কে হারুনুর রশীদ বলেন, জিয়াউর রহমান দেশে যে প্রক্রিয়াতেই ক্ষমতায় আসুক না কেনো ক্ষমতায় আসার পর উনি চতুর্থ সংশোধনীর মাধ্যমে দেশে গণতন্ত্র ফিরে এনেছিলেন। এখন সেই গণতন্ত্র অনুপস্থিত।
কৃষক ধানের নায্যমূল্য পাচ্ছে না বলে ধান লাগানো বন্ধ করে দিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পর্ণ হয়নি। গত অর্থবছরে কত লাখ টন ধান, কত লাখ টন গম ও চাল আমদানি করা হয়েছে? চাইলে পরিসংখ্যান দিয়ে বলতে পারি।
বরাদ্দকৃত অর্থের চেয়ে বেশি খরচ করায় নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে বিএনপি দলীয় এই সংসদ সদস্য বলেন, এবার জাতীয় নির্বাচন হয়েছে। হ্যাঁ নির্বাচন করেছেন স্বাভাবিকভাবেই খরচ বাড়তে পারে। প্রশ্ন হচ্ছে নির্বাচন করতে যেয়ে কোনো নির্বাচনের বৈধতা অর্জন করতে পেরেছেন? এই নির্বাচন কমিশন অযোগ্য ব্যর্থ নির্বাচন কমিশন। এই নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করতে পেরেছেন? কাজেই তারা যে টাকা খরচ করেছে সেটা সম্পূর্ণ অপচয় করা হয়েছে। চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলব এই টাকা অপচয় করা হয়েছে।